পরমেশ্বরদীতে জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে ১৫ বাড়িঘর ভাংচুর, প্রতিপক্ষের লাথিতে অন্তঃসত্ত্বা নারীর পেটের বাচ্চা নষ্টের অভিযোগ

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নে জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে ১৫ টি বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় প্রতিপক্ষের লাথির আঘাতে এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলার পেটের বাচ্চা নষ্ট হয়েছে বলেও অভিযোগ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, জমিজমা ও আধিপত্য নিয়ে রাসেল কাজী এবং রিপন মিয়ার মধ্যে পূর্ব থেকেই বিরোধ চলছিলো। এর জেরে শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে সরোয়ার খার নেতৃত্বে আইউব খন্দকার, রাসেল কাজী, লিঠু মিয়া, জাবেদ মিয়াসহ ১০/১৫ জন অতর্কিতে আক্রমণ করে রিপন মিয়ার ১৫ সমর্থকের বাড়িঘর ভাংচুর করে। রিপন মিয়ার সমর্থক ফরিদ মিয়ার ঘরে রাখা নগদ দুই লাখ টাকাও দুর্বৃত্তরা লুটপাট করে বলে অভিযোগ। বাধা দিতে গিয়ে রিপন মিয়ার সমর্থক টেপু কাজী, দেলোয়ার শেখ, রানা, সোবাহান শেখ, মান্নান মোল্যা আহত হন। আহত দেলোয়ার, রানা, সোবাহান, মান্নানকে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং গুরুতর আহত টেপু কাজীকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিপক্ষের পাল্টা আক্রমণে রাসেল কাজীর দুই সমর্থক কলেজ ছাত্র জিহাদ মিয়া (২০) ও লিটু মিয়া (৪০) আহত হলে তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এ সময় সরোয়ার খার লাথির আঘাতে শিউলির (৩০) পেটের ৩/৪ মাসের বাচ্চা নষ্ট হয়েছে বলে অহিদ মিয়ার স্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ শাকিলা আজাদ জানান, আল্ট্রাসনোগ্রাফ রিপোর্ট অনুযায়ী জানতে পারি ওই মহিলার পেটের বাচ্চা নষ্ট হয়েছে তবে আঘাতে কি-না বিষয়টি স্পষ্ট নয়।
বোয়ালমারী থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নুরুল আলম বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ করে নাই। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *