বোয়ালমারীতে হত্যা মামলার সাক্ষীকে কুপিয়ে জখম

শেয়ার করুন


বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ
ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও পোয়াইল গ্রামের মো. জামাল হোসেনকে শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। জামালকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে আনার পর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পোয়াইল গ্রামের এখলাস মোল্যা জানান, ২০১৯ সালের ৫ এপ্রিল উপজেলার চতুল ইউনিয়নের পোয়াইল গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুর্বৃত্তদের হাতে দেলোয়ার মাতুব্বর খুন হন। এ খুনের মামলার ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ( এক নম্বর সাক্ষী) ছিলেন মো. জামাল হোসেন ওরফে জামাল মাতুব্বর। দেলোয়ারের খুনিরা জামালকে ওই হত্যা মামলায় সাক্ষ্য না দিতে বারবার হুমকি দিচ্ছিলেন। হুমকির প্রেক্ষিতে চলতি বছরের ২০ আগস্ট জামাল বোয়ালমারী থানায় একটি জিডি করেন। এর জেরে জামাল বাড়ি থেকে বোয়ালমারী আসার পথে শনিবার সকালে পোয়াইল গ্রামের খোকন গাজির বাড়ির সামনে আসলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা দেলোয়ারের খুনিরা সিজু, উজ্জ্বল, মাহাবুর, বক্কার, ইয়াসিন, জাকারিয়া পেছন থেকে অতর্কিত হামলা চালিয়ে জামালকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।
এ ব্যাপারে চতুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ সেলিমুজ্জামান লিটু বলেন, দেলোয়ার হত্যার আসামীরাই আজ এই ঘটনা ঘটিয়েছে।
বোয়ালমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আমিনুর রহমান বলেন, গোলমালের সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *